বৃহস্পতিবার | ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৬ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি | রাত ৮:৫৩
Home / খেলাধুলা / তামিম,মাহমুদুল্লাহর কথোপকথন…

তামিম,মাহমুদুল্লাহর কথোপকথন…

শাওন মৃধা!!
ইনস্ট্রাগ্রামে সতীর্থ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সাথে আড্ডার এক পর্যায়ে নিদাহাস ট্রফিতে শ্রীলঙ্কাকে হারানো ম্যাচ নিয়ে আলোচনার করার সময় তামিম স্মৃতিচারণ করেন একটি ঘটনার।

তামিম বলেন,
“ট্রাই-নেশন সিরিজের ফাইনালে আমরা যখন শ্রীলঙ্কার সাথে হেরেছিলাম তার পরের দিন ব্রেকফাস্ট করতে গেলাম সেখানে হাতুর (হাতুরাসিংহে) সঙ্গে আমার দেখা হয়। আমাকে দেখে সে মুচকি একটা হাসি দিলো। আমি তখন হাতুকে গিয়ে বললাম, “হাতু এত হাসিও না, আমরা তোমাদের দেশে এসে তোমাদের হারাবো”।

লকডাউনে শুক্রবারের জুম্মার নামাজ সবচেয়ে বেশি মিস করছেন তামিম।

একজন মুসলিম হিসেবে আমাদের সকলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে নামাজ। শুক্রবারের জুম্মার নামাজ আমাদের মুসলমানদের জন্য মহা গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। শুক্রবারের জুম্মার নামাজকে বলা হয় গরিবের হজ্জ্ব। একজন মুসলমান হিসেবে আমাদের সবার মতো জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবালের কাছেও খুবই মুল্যবান এই দিনটি। করোনার প্রভাবে লকডাউন পুরো দেশ, যার ফলে শুক্রবারে পবিত্র জুম্মার নামাজ পড়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে কোটি কোটি মুসল্লির মতো তামিম নিজেও। লক ডাউনের ফলে শুক্রবারের নামাজ পড়তে না পারায় নিজের আক্ষেপের কথা জাতীয় দলের নিজের আরেক সতীর্থ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের কাছে প্রকাশ করছেন তামিম।

গতকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্ট্রাগ্রামে তামিম ও রিয়াদের মধ্যকার লাইভ আড্ডা চলাকালীন সময়ে তামিমের কাছে রিয়াদের প্রশ্ন ছিল ” আচ্ছা তামিম লক ডাউনের এই সময়টায় তুই সবচাইতে বেশি কোন জিনিসটা মিস করছিস? সবচাইতে বেশি!

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের প্রশ্নের জবাবে তামিম বলেন,
“আমার কাছে সবচেয়ে বেশি খারাপ লাগে যখন আমি শুক্রবারে জুম্মার নামাজ পড়তে যেতে পারিনা। বিশ্বাস করেন রিয়াদ ভাই আমার খুব খুব খারাপ লাগে এর জন্য। আমি জানি না এটি কতটুক সত্য মিথ্যা, তবে ছোটবেলায় শুনেছিলাম পরপর তিন শুক্রবার নামাজ না পড়লে কিছু একটা ঘটে। ওটা এখন শুধু মাথায় আসে।
আবার মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের প্রশ্ন তামিম কোন বোলার কে পাইলেই তোর পিটাইতে মন চায়? জবাবে তামিম বলেন উমেশ জাদব কে।

উল্লেখ্য, মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এই মুহুর্তে লক ডাউন পুরো বিশ্ব। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো একসাথে একত্রিত হয়ে মসজিদে নামাজ পড়ার ব্যাপারে সীমিত আকারে মুসল্লি নিয়ে নামাজ পড়ার জন্য বলেছে সরকার। যার ফলে তামিমের মতো এমন কোটি কোটি মুসল্লি শুক্রবারের জুম্মার নামাজ আদায় করার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আফগানিস্তানের ক্রিকেটার রশিদ খানের মায়ের ইন্তেকাল

মোঃ মামুন আহমেদ!! আফগানিস্তানের তারকা ক্রিকেটার রশিদ খানের মা আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ...