সোমবার | ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি | সকাল ৮:০৯
Home / আন্তর্জাতিক / প্রকাশ্যে এসেছিলেন কিমের ডামি, কিম জং উন নয়

প্রকাশ্যে এসেছিলেন কিমের ডামি, কিম জং উন নয়

পর্দার আড়ালে ২৪.কম নিউজ ডেস্ক!!
কিম জং উন বিতর্ক যেন শেষ হয়েও শেষ হচ্ছে না। মাসখানেক অন্তরালে থাকার পর জনসমুক্ষে আসায় বিতর্ক কিছুটা ধামাচাপা পড়েছিল। কিন্তু সপ্তাহ ঘোরার আগেই আবারও উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্টকে নিয়ে জমে উঠেছে অন্য বিতর্ক।
কিম কি ডামি ব্যবহার করছেন?

সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। শুধু নেটারিজেনরাই নয়, তালিকায় রয়েছেন ব্রিটেনের প্রাক্তন সাংসদ পর্যন্ত। মুখের আদল থেকে শুরু করে নাক, কান, দাঁত, চুলের পার্থক্য তুলে ধরে তাদের দাবি, গত (১) মে প্রকাশ্য অনুষ্ঠানে যাকে দেখা গিয়েছিল, তিনি আসলে কিম জং উনের ডামি।
মে এর ওই অনুষ্ঠানের আগে কিম জং উনকে শেষ দেখা গিয়েছিল এপ্রিলের শুরুর দিকে। এক মাস জনসমক্ষে না দেখা যাওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক জল্পনা, গুঞ্জন, গুজব ছড়াতে শুরু করে। কেউ বলেছিলেন, তিনি গুরুতর অসুস্থ, প্রাণের ঝুঁকি রয়েছে। ‘মৃত্যুশয্যায় কিম’ বলে রটনা ছিল। কারও দাবি ছিল, অস্ত্রোপচার হয়েছে বলে অন্তরালে। প্লাস্টিক সার্জারির তত্ত্বও খাড়া করেছিলেন অনেকেই। এমনকি কিম জং উন আর বেঁচে নেই— এমন কথাও ঘুরছিল সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে দেওয়ালে। একই সঙ্গে তৈরি হয়েছিল তীব্র কৌতূহল।

কিন্তু সে সব কার্যত ভুল প্রমাণ করে এবং কৌতূহলের অবসান ঘটিয়ে (১) মে সর্বসমক্ষে আসেন কিম জং উন। নিভৃতবাসে যাওয়ার (২০) দিন পর একটি সার কারখানার উদ্বোধনের ফিতে কাটতে দেখা যায় তাঁকে। তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে এই নতুন বিতর্ক এবং গুঞ্জন। খুঁতখুঁতে অনেকেই আগেকার ছবির সঙ্গে এখনকার ছবিতে কতটা পার্থক্য, কতটা পুরোনো সেটার কাটাছেঁড়া করে সে সব খুঁজে বের করার প্রতিযোগিতায় নেমেছেন।

আর এখান থেকেই উঠে এসেছে নর্থ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানের ডামি বা নকল কিম জং উনের তত্ত্ব। সন্দেহপ্রবণদের অনেকেই পাশাপাশি দুই ছবি রেখে দেখিয়ে দিচ্ছেন দুই ছবিতে কোথায় কোথায় গরমিল। ব্রিটেনের প্রাক্তন সাংসদ লুই মেনশ যেমন বলছেন, দাঁত ও কানের গড়ন এক রকম নয়। উপরের ঠোঁটের যে অংশকে কিউপিড বো বলা হয় তার চরিত্র দু’জনের আলাদা। কেউ কেউ ফারাক দেখিয়েছিলেন হেয়ারস্টাইলের।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ব্লিনকেনকে উইঘুদের বন্দি শিবির ও নির্যাতন বন্ধের আহ্বান

সম্প্রতি জিনজিয়াংয়ে উইঘুদের প্রতি চীনের অমানবিক আচরণ ও গণহত্যা বলে স্বীকৃতি দিয়েছে ...